বলিউড তারকা হৃতিক রোশন ও তাঁর সাবেক স্ত্রী সুজান খান এখন যুক্তরাষ্ট্রে ছুটি কাটাচ্ছেন। এই ভ্রমণে তাঁদের সঙ্গে দুই ছেলে রিদান ও রিহানও আছে। বলিউড অভিনেত্রী সোনালি বেন্দ্রেকেও দেখা গেল তাঁদের দলে। সম্প্রতি এই অভিনেত্রী নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে অরলান্ডার ইউনিভার্সেল স্টুডিওতে তোলা একটি ছবি প্রকাশ করেছেন। সেখানে শাহরুখ খানের ‘স্বদেশ’ ছবির নায়িকা গায়েত্রী ওবেরয়, সুজান খান ও হৃতিক রোশনকে দেখা গেছে তাঁর সঙ্গে।

সোনালি বেন্দ্রে সেই ছবির ক্যাপশন দিয়েছেন, ‘বন্ধু, আনন্দ। গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে ইউনিভার্সেল স্টুডিওতে।’

আর সুজান খান তাঁর ব্যক্তিগত ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে অরলান্ডা ভ্রমণের বেশ কিছু ছবি প্রকাশ করেছেন। তবে, হৃতিক আছেন এমন কোনো ছবি তাঁকে এখনো প্রকাশ করতে দেখা যায়নি।

ইনস্টাগ্রামে ছেলে ও বন্ধুদের নিয়ে বেড়ানোর ছবি প্রকাশ করেছেন সুজান খান।প্রেম ভেঙে যাওয়ার পরও বন্ধুত্ব বজায় রাখার চল বলিউডে আরও আগে থেকেই শুরু হয়েছে। কিন্তু সংসার ভাঙার পর বন্ধুত্বের নজির বুঝি হৃতিক রোশন ও সুজান খানের হাত ধরেই তৈরি হলো। ২০১৪ সালের অক্টোবরে ১৪ বছরের সংসারে ইতি টানেন হৃতিক-সুজান। ইদানীং চোখে পড়ছে তাঁদের ঘনিষ্ঠতা। সময়-অসময়ে একে অন্যের পাশে থাকছেন। আলাদা হওয়ার পর দুই ছেলে রিদান ও রিহানকে নিয়ে প্রায়ই দেশের বাইরে ঘুরতে যান হৃতিক। বছরের শুরুর দিকে বাবা-বেটাদের ভ্রমণে যুক্ত হয়েছিলেন মা সুজান খান। আবার এই বছর ইংরেজি নববর্ষ উদ্‌যাপন করতে সাবেক স্ত্রীকে নিয়ে দুবাই ঘুরে এসেছেন হৃতিক। কিছুদিন আগেও তাঁদের একসঙ্গে দেখা গেছে অক্ষয় কুমার-টুইঙ্কেল খান্না দম্পতির সঙ্গে। এমন কি গুঞ্জন শোনা যায়, সুজানের জন্মদিনের অনুষ্ঠানেও আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন হৃতিক। আর হৃতিকের সর্বশেষ ছবি ‘কাবিল’-এর বিশেষ প্রদর্শনীতে হাজির হয়ে সুজান তো জানিয়েই দিলেন, হৃতিককে নিয়ে তিনি ভীষণ গর্বিত।

এবার বেশ বড় দল নিয়েই যুক্তরাষ্ট্রে ছুটি কাটাচ্ছেন হৃতিক ও সুজান।উল্লেখ্য, হৃতিক-সুজানের দেখানো পথে হাঁটছেন বলিউডের আরেক সাবেক দম্পতি। এই ঈদে বলিউড অভিনেতা সালমান খানের বাড়িতে আয়োজিত ঈদ পার্টিতে সাবেক স্ত্রী মালাইকা অরোরা ও তাঁর বোন অমৃতা অরোরার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সময় কাটাতে দেখা গেছে আরবাজ খানকে। এই বছরই আরবাজ-মালাইকার আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হয়েছে। তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।
সালমানের ঈদ পার্টিতে সাবেক স্ত্রী মালাইকা অরোরা ও শ্যালিকা অমৃতা অরোরার সঙ্গে আরবাজ খান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here